1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ইএসডিও- ডাভ সেলফ এস্টিম প্রকল্পের অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত তিস্তায় পানি বৃদ্ধি ২২ গ্রাম প্লাবিত হুমকির মুখে তিস্তার তীরবর্তী মানুষ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন জলঢাকায় শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন করেছে যুবলীগ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নারী উদ্দোক্তা প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত আনন্দের ভাগিদার হতে ছুটে এসেছি জলঢাকায় পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ড. তুরিন আফরোজ জলঢাকায় মঙ্গলদ্বীপের উদ্যোগে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জলঢাকায় প্রতিমাকে দৃষ্টিনন্দন করতে রং তুলির কাজে ব্যস্ত এখন কারিগররা জলঢাকায় অনির্বাণ স্কুলে একাডেমিক ভুবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন জলঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

আইফোনের সঙ্গে চার্জার না দেওয়ার কারণ জানাল অ্যাপল

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশকাল | সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১
  • ৫৩ বার পঠিত

এবার আইফোনের সঙ্গে চার্জার না দেওয়ার কারণ জানাল আমেরিকান টেক জায়ান্ট অ্যাপল। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এসব উপকরণ পরিবেশদূষণের জন্য দায়ী। তাই সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক কারণে তারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গত বছর আইফোনের সঙ্গে আর চার্জার অ্যাডাপ্টর না দেওয়ার ঘোষণার পরই সমালোচনা শুরু হয়েছিল। ভোক্তারা বলেছিল, আইফোনের দাম অনেক বেশি, তার ওপর চার্জার যদি অতিরিক্ত টাকা খরচ করে কিনতে হয় তাহলে ব্যয় আরও বেড়ে যাবে। যা অসন্তোষ তৈরি করেছিল। তাই অ্যাপল এবার চার্জার অ্যাডাপ্টর না দেওয়ার কারণ জানিয়ে দিল।
অ্যাপলের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম গেজেটস নাউ এক প্রতিবেদনে বলেছে, পাওয়ার অ্যাডাপ্টারে প্লাস্টিক, কপার, টিন ও জিংক এর মতো উপকরণ ব্যবহার করতে হয়। এসব উপকরণ পরিবেশদূষণের জন্য দায়ী। এ কারণে চার্জার সরবরাহ বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে অ্যাপল। এতে পরিবেশ বিপর্যয়ের মাত্রা কিছুটা হলেও কমেছে।

অ্যাপল বলছে, আইফোন বক্সে চার্জিং অ্যাডাপ্টর না দেওয়ার মাধ্যমে ৮ দশমিক ৬১ লাখ টন কপার, জিংক ও ধাতু সাশ্রয় হয়। এ ছাড়া চার্জার ছাড়া আইফোনের বাক্সটির আকারও ছোট হয়ে যায়। ফলে সম্পূর্ণ প্যাকিং প্রক্রিয়াও অনেক সহজসাধ্য এবং দ্রুত হয়।
ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আমেরিকার কুপার্টিনো শহরে অ্যাপলের অফিস। সেই শহরে ২০১৯ সালে কার্বন ডাই–অক্সাইড নির্গমনকে ২৫ দশমিক ১ মিলিয়ন টন থেকে ২২ দশমিক ৬ মিলিয়ন টনে নামিয়ে এনেছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!