1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার- ২ পলাতক-১’জন মোটরসাইকেল জব্দ সৈয়দপুরে জীবিত স্বামীকে মৃত দেখিয়ে ১৭ বছর থেকে বিধবা ভাতা উত্তোলন, সমাজসেবা কর্তৃপক্ষ নির্বিকার ঝিকরগাছায় আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ১১ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশের মাঝে ১০৯টি বাইসাইকেল বিতরণ জলঢাকায় যানজটে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলছে : নিরসনের দাবি পৌরবাসির বেনাপোলে গৃহহীনদের ঘর নিয়ে ভুমি অফিসের সহকারীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ। ঝিকরগাছায় সাপের কামড়ে ১ গৃহবধূর মৃত্যু বেনাপোলে র‍্যাবের অভিযানে গাজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক সৈয়দপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বাইসাইকেল বিতরণ সৈয়দপুরে সাহিত্য আসরের ৪থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

চাকরি থেকে অব্যাহতি ক্ষোভে কোম্পানির ম্যানেজারকে খুন

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশকাল | শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩৩ বার পঠিত

কুমিল্লায় অনিয়মের অভিযোগে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়ার ক্ষোভে ইপিজেডের একটি বিদেশি কোম্পানির অফিসারকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে।

নিহত খায়রুল বাসার সুমন (৩২) কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার গলিয়ারা ইউনিয়নের মান্দারি গ্রামের মোহাম্মদ মমিন মাস্টারের তৃতীয় ছেলে। সুমন কুমিল্লা ইপিজেডে সিং সাং সু নামে একটি চায়না কোম্পানিতে এইচআর অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) বিকেলে ইপিজেড থেকে বাড়ি ফেরার পথে ইপিজেড গেইট সংলগ্ন রোসা ও স্বপ্ন সুপার সপের সামনে সুমনকে ছুরিকাঘাত করা হয়। আহত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তিনি মারা যান।

নিহত সুমনের চাচাতো ভাই আলামিন জানান, সুমনের সঙ্গে কারো শত্রুতা নেই। কে বা কারা তাকে ছুরিকাঘাত করেছেন আমরা এখনও বলতে পারছি না। তবে তার সহকর্মীদের কাছ থেকে জানতে পেরেছি তার কোম্পানিতে অনিয়মের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। যাকে অব্যাহতি দিয়েছেন ওই ব্যক্তি ক্ষোভে সুমনকে ছুরিকাঘাত করেন। সুমনের নিয়ে আমরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রয়েছি।

খুনের বিষয়ে সদর দক্ষিণ থানার তদন্ত কর্মকর্তা অমল কৃষ্ণ ধর বলেন, ইপিজেড গেইট সংলগ্ন রোসা ও স্বপ্ন সুপার সপের সামনে সুমন নামে এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে এই ব্যক্তি মারা যান। তিনি কুমিল্লা ইপিজেডের একটি কোম্পানিতে অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। কে বা কারা কি কারণে তাকে ছুরিকাঘাত করেছেন তা নিয়ে আমরা তদন্ত করছি। পরিবার থেকে এখনও কোনো অভিযোগ দায়ের করেননি। মরদেহ মেডিক্যালের মর্গে রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!