1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার- ২ পলাতক-১’জন মোটরসাইকেল জব্দ সৈয়দপুরে জীবিত স্বামীকে মৃত দেখিয়ে ১৭ বছর থেকে বিধবা ভাতা উত্তোলন, সমাজসেবা কর্তৃপক্ষ নির্বিকার ঝিকরগাছায় আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ১১ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশের মাঝে ১০৯টি বাইসাইকেল বিতরণ জলঢাকায় যানজটে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলছে : নিরসনের দাবি পৌরবাসির বেনাপোলে গৃহহীনদের ঘর নিয়ে ভুমি অফিসের সহকারীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ। ঝিকরগাছায় সাপের কামড়ে ১ গৃহবধূর মৃত্যু বেনাপোলে র‍্যাবের অভিযানে গাজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক সৈয়দপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বাইসাইকেল বিতরণ সৈয়দপুরে সাহিত্য আসরের ৪থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

ভারতের একমাত্র বিমানবাহী রণতরীতে আগুন

অনলাইন ডেস্ক |
  • প্রকাশকাল | শনিবার, ৮ মে, ২০২১
  • ৬০ বার পঠিত
প্রায় ২০ তলা বিশিষ্ট এই রণতরীতে ২২টি ডেক রয়েছে এবং প্রায় ১৬শ’ জন কর্মী বহন করার ক্ষমতা রাখে

ভারতের একমাত্র বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রমাদিত্যে আগুন লাগার খবর পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। জাহাজের সব কর্মী নিরাপদে রয়েছেন বলে এ বিবৃতিতে জানায় নৌবাহিনীর এক মুখপাত্র।

সেখানে বলা হয়, জাহাজের যে অংশে কর্তব্যরত কর্মী ও নাবিকদের থাকার বন্দোবস্ত রয়েছে, সেখান থেকেই সকালে ধোঁয়া নির্গত হতে থাকে। জাহাজের কর্মীদের চেষ্টায় বড় ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত চলছে।

রণতরীটি এখন কর্ণাটকের কারওয়ার বন্দরে রয়েছে বলে জানায় দেশটির সংবাদমাধ্যম।

আইএনএস বিক্রমাদিত্যর দৈর্ঘ্য ২৮৪ মিটার ও সর্বোচ্চ ৬০ মিটার চওড়া। তিনটি ফুটবল মাঠ একত্র করলে যতটা দৈর্ঘ্য হবে, জাহাজটি ততটা লম্বা। প্রায় ২০ তলা বিশিষ্ট এই রণতরীতে ২২টি ডেক রয়েছে এবং প্রায় ১৬শ’ জন কর্মী বহন করার ক্ষমতা রাখে।

যুদ্ধ জাহাজটি ২০১৩ সালে রাশিয়ার কাছ থেকে কিনেছিল ভারত। এর পর সম্রাট বিক্রমাদিত্যের সম্মানে নামকরণ করা হয়। কিয়েভ শ্রেণির বিমানবাহী রণতরীটি আধুনিকীকরণের পর ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল।

এই বিমানবাহকে রয়েছে অত্যাধুনিক মিগ-২৯ যুদ্ধবিমান, বারাক মিসাইল-সহ একাধিক যুদ্ধাস্ত্র।

১৯৮৭ সালে তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের নৌসেনায় ‘বাকু’ নামে এই বিমানবাহকে অন্তর্ভুক্ত হয়। এরপর ১৯৯২ সালে ‘অ্যাডমিরাল গর্শকভ’ নামকরণ করা হয়। ১৯৯৬ সালে ভারতের কাছে জাহাজটি বিক্রির প্রস্তাব দেয় রাশিয়া।

বিক্রমাদিত্য থেকেই ভূমি থেকে আকাশে হামলায় সক্ষম বারাক-৮ ক্ষেপণাস্ত্রটির সফল পরীক্ষা করে ভারত।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!