1. admin@theinventbd.com : admin :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
করোনা: ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরও ২২৮, শনাক্ত ১১২৯১ সৈয়দপুরে ৬ মামলা ২০ হাজার জরিমানা ও একজনের জেল অক্সিজেন সেবা নিয়ে করোনা রোগীদের পাশে কিশোরগঞ্জে সিসি ক্যামেরায় গরু চোর শনাক্ত-৪ ঘন্টায় উদ্ধার জলঢাকায় কোরবানির গোস্ত নিয়ে দুস্তদের দুয়ারে দুয়ারে গেলেন ইউএনও মাহবুব হাসান আরও ১৯৫ মৃত্যুতে করোনায় প্রাণহানি ১৯ হাজার ছাড়াল লকডাইন অমান্য করে সৈয়দপুরে পুলিশ কর্মকর্তাকে পেটানোর মামলায় ব্যবসায়ীর দুই পুত্র আটক কিশোরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের স্বপ্নের ঘরে প্রথম ঈদ সৈয়দপুরে বিধিনিষেধ অমান্য করায় ২১মামলা ১ জনের ৭দিনের জেল নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন এক হাজার পরিবার

চুরি যাওয়া নবজাতক মাত্র দুই হাজার টাকায় বিক্রি

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশকাল | সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ৩৯ বার পঠিত

নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া নবজাতককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মাত্র দুই হাজার টাকার বিনিময়ে বিক্রি হয় নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া দুই দিনের নবজাতক।

সোমবার (১০ মে) দুপুরে নরসিংদী মডেল থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ রাসেল শেখ।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, রোববার (০৯ মে) সকালে সদর হাসপাতালের দোতলায় নানীর কোল থেকে ২ দিন বয়সী নবজাতক চুরি হয়। চুরির পরই হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে কাজ শুরু করে পুলিশ।

এরইমধ্যে পুলিশের কাছে খবর আসে এক অটোরিকশা চালক নরসিংদী সদর হাসপাতালের গেটের সামনে থেকে এক অজ্ঞাত নারীকে ব্রাহ্মন্দী এলাকায় নামিয়ে দিয়ে আসে। এরপর অটোরিকশা চালককে নিয়ে রাত ১টার দিকে ওই নারীর বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। সেখানে লিপিকা নামে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক নারীর কাছে শিশুটিকে পাওয়া যায়।
পুলিশ বলছে, ‘ওই নারীর ভাষ্যমতে, তার আগে আরও দুই মেয়ে রয়েছে। গর্ভের সন্তানটিও মেয়ে। সমাজের মানুষের লজ্জার ভয়ে কয়েকদিন আগে অজ্ঞাত ওই নারীর সঙ্গে একটি পুত্র সন্তানের বিষয়ে আলোচনা করে। পরে ওই নারী তাকে একটি পুত্র সন্তান এনে দেওয়ার বিষয়ে আশ্বাস দেন।
সর্বশেষ রোববার (০৯ মে) দুপুরে তার বাসায় সদর হাসপাতালের চুরি হওয়া ওই শিশু নিয়ে হাজির হন ওই নারী। তারপর ২ হাজার টাকা বখশিশের বিনিময়ে বাচ্চাটি লিপিকার হাতে তুলে দেন তিনি। তারপর বাসা থেকে চলে যায় ওই নারী। যার কাছ থেকে শিশুটি পাওয়া গেছে তিনি অন্তঃসত্ত্বা এবং যিনি চুরি করেছেন তাকে এখন পর্যন্ত খুঁজে পাইনি পুলিশ।
পুলিশ জানিয়েছে, অপরাধ এবং মানবিক দুই দিক বিবেচনা করে এখন পর্যন্ত ওই নারীকে গ্রেফতার করিনি। তবে আরও কোন চক্রের যোগসাজশ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!