1. admin@theinventbd.com : admin :
শুক্রবার, ০৬ অগাস্ট ২০২১, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকীর কর্মসূচী পালন করছে উপজেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন সংগঠন জলঢাকায় শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী পালন করেছে উপজেলা যুবলীগ ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ এর জন্মদিনে জলঢাকার ফাউন্ডেশনে কর্মীদের মিষ্ট মুখ সৈয়দপুরে করোনায় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্টসহ দুই জনের মৃত্যু নীলফামারীর সৈয়দপুরে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) অভিযান পরিচালনা করে ৫শ’৭০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন। জলঢাকায় ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গ্রেফতার – ১ সৈয়দপুরে মাদক ব্যবসার জের, ভুড়ি বের করে দিলো প্রতিপক্ষ পাথর বোঝাই ৪০টি ওয়াগন নিয়ে বাংলাদেশে আসলো ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রেন ডিমলায় ভিজিডি কার্ডের চাল না দেয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের নামে থানায় জিডি জলঢাকায় ক্যান্সার আক্রান্ত দুই শিক্ষককে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান

ভারতীয় ধরন ছড়িয়ে পড়লে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে- বিএসএমএমইউ উপাচার্য

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশকাল | মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১
  • ৫৩ বার পঠিত

দেশে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন ছড়িয়ে পড়লে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। তখন পরিস্থিতি সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে পড়বে বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।

রোববার (০৯ মে) ‘কোভিড-১৯ আপডেট’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরনটি অত্যন্ত দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। এ ধরনের মাধ্যমে একজন থেকে ৪০০ জন পর্যন্ত আক্রান্ত হতে পারে।
তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুসারে এ বছর ঈদে যে যেখানে আছেন সেখানেই ঈদ করুন। এমনকি বর্তমান পরিস্থিতিতে আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে দাওয়াত খেতে যাওয়াও ঠিক হবে না। সবাইকে দ্রুত ভ্যাকসিন নেওয়া, প্রয়োজনে দুটি মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ সবধরনের স্বাস্থ্যবিধি অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বিএসএমএমইউ-তে করোনাভাইরাসের ধরন নির্ধারণে জিনোম সিকোয়েন্সিং করা হচ্ছে, এন্টিবডি পরীক্ষার ব্যবস্থাও আছে।
তিনি বলেন, ভাইরাসের জেনেটিক মিউটেশনের কারণে বিভিন্ন রকমের ভেরিয়েন্টের উৎপত্তি হয়। এর মধ্যে কোনো কোনো ভেরিয়েন্ট সংক্রমণ, ভোগান্তি, জটিলতা ও মৃত্যুহারের বিবেচনায় অনেক শক্তিশালী হয়ে ওঠে। ভেরিয়েন্টগুলো বিভিন্ন মাত্রার শক্তিশালী হলেও ভ্যাকসিন অবশ্যই নিতে হবে। কারণ ভ্যাকসিন নিলে সব ধরনের ভেরিয়েন্ট থেকে কম বেশি রক্ষা পাওয়া যাবে।
আশার কথা ভারতীয় ভেরিয়েন্ট আমরা শুরুতেই শনাক্ত করতে পেরেছি এবং দ্রুততর সময়ের মধ্যেই সরকার তা মানুষকে জানিয়ে দিতে পেরেছে। ফলে এই ভেরিয়েন্টের ছড়িয়ে পড়া রুখে দেওয়া সম্ভব হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
তিনি বলেন, এ ক্ষেত্রে ভারতীয় ভেরিয়েন্ট যদি ছড়ানোর পথ আমরা বন্ধ রাখতে পারি, তবে ওই ভেরিয়েন্ট আমাদের তেমন কিছু করতে পারবে না, যেমনটা হয়েছে যুক্তরাজ্যের ভেরিয়েন্টের ক্ষেত্রে। আমরা দেশে যুক্তরাজ্যের ভেরিয়েন্ট আসার পরপরই তা আটকে দিতে পেরেছি বলে এখানে তা ছড়াতে পারেনি।
উল্লেখ্য, গত ৮ মে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের ‘ভারতীয় ভেরিয়েন্ট’ শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!