1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ইএসডিও- ডাভ সেলফ এস্টিম প্রকল্পের অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত তিস্তায় পানি বৃদ্ধি ২২ গ্রাম প্লাবিত হুমকির মুখে তিস্তার তীরবর্তী মানুষ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন জলঢাকায় শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন করেছে যুবলীগ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নারী উদ্দোক্তা প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত আনন্দের ভাগিদার হতে ছুটে এসেছি জলঢাকায় পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ড. তুরিন আফরোজ জলঢাকায় মঙ্গলদ্বীপের উদ্যোগে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জলঢাকায় প্রতিমাকে দৃষ্টিনন্দন করতে রং তুলির কাজে ব্যস্ত এখন কারিগররা জলঢাকায় অনির্বাণ স্কুলে একাডেমিক ভুবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট সন্দেহ সৈয়দপুরে একই পরিবারের ৪ জন পজিটিভ, বাসা লকডাউন

জয়নাল আবেদীন হিরো,স্টাফ রিপোর্টার :
  • প্রকাশকাল | মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১
  • ৯৫ বার পঠিত

নীলফামারীর সৈয়দপুরে একই পরিবারের ৪ জনের করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়েছে। ভারত ফেরত একজনের মাধ্যমে সংক্রমণের কারনে ধারনা করা হচ্ছে আক্রান্তদের করোনা ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট হতে পারে। ১১ মে মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় উপজেলা প্রশাসন ওই বাড়ি লকডাউন করেছে।

জানা যায়, সৈয়দপুর পৌরসভার পুরাতন বাবুপাড়ার (পানির ট্যাংকীর পূর্ব পাশে) বাসিন্দা আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে এডভোকেট রায়হান (৩০) গত ২৩ এপ্রিল ভারত হতে বাংলাদেশে আসে। গত ২৭ এপ্রিল নিজ উদ্যোগে ঢাকার পল্টনে আল জেমি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করলে পজিটিভ হয়।

পরবর্তীতে তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও আক্রান্ত হন। গত ৫ মে তাঁর পরিবারের সদস্যদের নমুনা পরীক্ষা করলে পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তারা হলো রায়হানের স্ত্রী নওশিন (২৮) ও ছেলে মহনাজ (৬)।

একজন করোনা পজিটিভ রোগীকে কমপক্ষে ১৪ দিন হোম আইসোলেশনে থাকতে হয়। কিন্তু তিনি গত ১০ মে সকালে পরিবারসহ সৈয়দপুর চলে আসেন। খবর পেয়ে তার বাসা আজ ১১ মে সকালে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আগামী ১৯ মে পর্যন্ত লকডাউন করা হয়েছে।

লকডাউন কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাসিম আহমেদ স্যার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু মোঃ আলেমুল বাসার স্যার, মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) মোঃ আবু তাহের সিদ্দিকী ও সৈয়দপুর থানার পুলিশ সদস্যবৃন্দ।

রোগী যেহেতু ভারত হতে এসেছেন সেহেতু ধারনা করা হচ্ছে এটি ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট হতে পারে। ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট হয়ে থাকে তাহলে সৈয়দপুরবাসীর জন্য বড় ধরনের বিপর্যয় অপেক্ষা করছে। আতংকিত না হয়ে সচেতন হোন, নিজে বাঁচুন অন্যকে বাঁচতে সহযোগিতা করুণ বলে সতর্ক করেছেন স্বাস্থ্য বিভাগ।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!