1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ইএসডিও- ডাভ সেলফ এস্টিম প্রকল্পের অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত তিস্তায় পানি বৃদ্ধি ২২ গ্রাম প্লাবিত হুমকির মুখে তিস্তার তীরবর্তী মানুষ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন জলঢাকায় শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন করেছে যুবলীগ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নারী উদ্দোক্তা প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত আনন্দের ভাগিদার হতে ছুটে এসেছি জলঢাকায় পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ড. তুরিন আফরোজ জলঢাকায় মঙ্গলদ্বীপের উদ্যোগে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জলঢাকায় প্রতিমাকে দৃষ্টিনন্দন করতে রং তুলির কাজে ব্যস্ত এখন কারিগররা জলঢাকায় অনির্বাণ স্কুলে একাডেমিক ভুবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন জলঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

শ্বশুরের সঙ্গে পরকীয়া, শাশুড়িকে খুন

অনলাইন ডেস্ক |
  • প্রকাশকাল | সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ৮৭ বার পঠিত

পীরগঞ্জের পল্লীতে শ্বশুর কফিল উদ্দিনকে (৭১) তার পুত্রবধূর সঙ্গে দীর্ঘদিনের পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় লাশ হতে হলো শাশুড়ি পোশাগী বেগমকে (৬০)। ওই ঘটনায় পুলিশ কফিলকে গ্রেফতার করেছে। মামলাটির অন্য আসামিরা পালিয়ে গেছে।

সোমবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত কফিলকে কোর্টহাজতে এবং পোশাগীর লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়।

উপজেলার পাঁচগাছী ইউনিয়নের জাহাঙ্গীরাবাদ গ্রামে ওই ঘটনায় নিহতের ছোটভাই থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

মামলা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার জাহাঙ্গীরাবাদ মধ্যপাড়া গ্রামের কফিল উদ্দিনের সঙ্গে প্রায় ৪৫ বছর আগে একই ইউনিয়নের পানেয়া গ্রামের পোশাগী বেগমের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ছেলে বহুরুল ও ১ মেয়ে কোহিনুরের জন্ম হয়। কফিলের ছেলে বহুরুল ইসলাম (৩৫) তার স্ত্রী মনিরা বেগমকে তার বাড়িতে রেখে প্রায় ১০ বছর ধরে ঢাকায় রিকশা চালাচ্ছেন। মাঝে মধ্যে বাড়িতে আসেন বহুরুল।

ছেলে দীর্ঘদিন বাড়িতে না আসার সুযোগে কফিল তার পুত্রবধূ মনিরার সঙ্গে ৭ বছর ধরে পরকীয়ার জেরে দৈহিক সম্পর্কে গড়ায়। এ নিয়ে গ্রামে একাধিকবার পারিবারিক সালিশে কফিল ঘটনার সত্যতাও স্বীকার করেন। কিন্তু তিনি ভালো হন না। এ ব্যাপারে বহুরুল ও তার মা পোশাগী বেগমসহ অনেককেই অবগত করলে তারাও তার বিরুদ্ধে কোনো কথা বলেননি।

একপর্যায়ে গত ২৭ মে রাত ১১টার দিকে কফিল তার পুত্রবধূ মনিরার ঘরে ঢোকে। এ সময় কফিল ও পুত্রবধূকে পোশাগী বেগম আপত্তিকর অবস্থায় ধরেন। পরে কফিল লাঠি দিয়ে তার স্ত্রী পোশাগীকে এলোপাতাড়ি মারপিট করলে তিনি নিস্তেজ হয়ে পড়েন। পরদিন ২৮ মে স্থানীয় মসজিদে জুমার নামাজ শেষে ঘটনাটির বিচারও হয়।

অপরদিকে খবর পেয়ে ২৯ মে বহুরুল ঢাকা থেকে বাড়িতে এলে ৩০ মে বিকালে তার বাড়িতেই সালিশ বসে। সালিশে অসুস্থ পোশাগী জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যান। বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বাড়িতেই পোশাগী মারা যান। ওই ঘটনায় পোশাগীর ছোটভাই মীর মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে তার দুলাভাই কফিল, ভাগিনা বউ মনিরা ও ভাগিনা বহুরুলকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

মীর মোশারফ হোসেন বলেন, আমার জন্মের অনেক আগে পোশাগী বুবুর জন্ম হইছে। প্রায় ৪৫ বছর সংসার করার পর আমার বোনকে হত্যা করল। আমি এর বিচার চাই।

তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ছেলের বউয়ের সঙ্গেও এমন ঘটনা ঘটে!

মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা এসআই খায়রুল আলম বলেন, মামলা পেয়েই প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছি। শিগগিরই অপর আসামিরা গ্রেফতার হবেন।

পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেস চন্দ্র বলেন, আমরা খুবই গুরুত্বের সঙ্গে মামলাটি তদন্ত করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!