1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
সৈয়দপুরে জীবিত স্বামীকে মৃত দেখিয়ে ১৭ বছর থেকে বিধবা ভাতা উত্তোলন, সমাজসেবা কর্তৃপক্ষ নির্বিকার ঝিকরগাছায় আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ১১ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশের মাঝে ১০৯টি বাইসাইকেল বিতরণ জলঢাকায় যানজটে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলছে : নিরসনের দাবি পৌরবাসির বেনাপোলে গৃহহীনদের ঘর নিয়ে ভুমি অফিসের সহকারীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ। ঝিকরগাছায় সাপের কামড়ে ১ গৃহবধূর মৃত্যু বেনাপোলে র‍্যাবের অভিযানে গাজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক সৈয়দপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বাইসাইকেল বিতরণ সৈয়দপুরে সাহিত্য আসরের ৪থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন সৈয়দপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রকৃত সৈনিকেরা ষড়যন্ত্রকে ভয় পায়না তারা লড়াই করেই বাঁচে, বিজয়ী হয়

তিনটি নয়, ভারতের একটি ভ্যারিয়েন্ট উদ্বেগের: ডব্লিউএইচও

অনলাইন ডেস্ক |
  • প্রকাশকাল | বুধবার, ২ জুন, ২০২১
  • ৬৭ বার পঠিত

ভারতে করোনার নতুন যে তিনটি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে তার মধ্যে একটিকে (বি.১.৬১৭) উদ্বেগের বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এর আগে সবগুলো ভ্যারিয়েন্টকেই উদ্বেগের বলেছিল সংস্থাটি। মঙ্গলবার কমিয়ে একটিকে বলা হয়েছে।

ভারতে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য করোনার এই ট্রিপল মিউট্যান্ট প্রজাতি বি.১.৬১৭-কে দায়ী করা হয়েছিল। ভাইরাসের এই বিশেষ প্রজাতির নামকরণ নিয়ে কিছুদিন আগে আপত্তি তুলেছিল ভারত। ভাইরাসটিকে ‘করোনার ভারতীয় প্রজাতি’ বলে উল্লেখ করাই ছিল অসন্তোষের কারণ।

সম্প্রতি বি.১.৬১৭ প্রজাতিটিকে কেভিড-১৯ এর ডেল্টা প্রজাতি বলে নামকরণ করেছে ডব্লিউএইচও।

করোনা সংক্রান্ত সাপ্তাহিক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলেছে, ‘ডব্লিউএইচও-র বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই ভাইরাসের তিনটি প্রকারভেদের বাকি দুটি ততটা বিপজ্জনক নয়। বি.১.৬১৭.২ নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। ’

‘এটা নিশ্চিত যে এই প্রকারভেদটির সংক্রমণ ক্ষমতা অনেক বেশি। এটি জনস্বাস্থ্যকে বড় রকমের ঝুঁকির মুখে ফেলতে পারে।

ভারতে কভিড সংক্রমণ আগের দিনের তুলনায় ৫ হাজারের মতো বেড়েছে। তবে তা দেড় লাখের নিচেই রয়েছে।

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে গণমাধ্যম জানায়, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টার হিসেবে বুধবার নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৭৮৮ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৮৩ লাখ পেরিয়ে গেল।

মঙ্গলবার ভারতে দৈনিক মৃত্যু ৩ হাজারের নিচে নেমেছিল। বুধবার সে অবস্থার অবনতি হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে প্রাণ হারিয়েছে ৩ হাজার ২০৭ জন। মোট প্রাণহানি হয়েছে ৩ লাখ ৩৫ হাজার ১০২।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!