1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:২১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার- ২ পলাতক-১’জন মোটরসাইকেল জব্দ সৈয়দপুরে জীবিত স্বামীকে মৃত দেখিয়ে ১৭ বছর থেকে বিধবা ভাতা উত্তোলন, সমাজসেবা কর্তৃপক্ষ নির্বিকার ঝিকরগাছায় আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ১১ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশের মাঝে ১০৯টি বাইসাইকেল বিতরণ জলঢাকায় যানজটে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলছে : নিরসনের দাবি পৌরবাসির বেনাপোলে গৃহহীনদের ঘর নিয়ে ভুমি অফিসের সহকারীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ। ঝিকরগাছায় সাপের কামড়ে ১ গৃহবধূর মৃত্যু বেনাপোলে র‍্যাবের অভিযানে গাজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক সৈয়দপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বাইসাইকেল বিতরণ সৈয়দপুরে সাহিত্য আসরের ৪থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

নীলফামারী জেলায় সর্বোচ্চ সংক্রমণ

জয়নাল আবেদীন হিরো,স্টাফ রিপোর্টার :
  • প্রকাশকাল | বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১
  • ৬৬ বার পঠিত

নীলফামারী জেলায় আশঙ্কাজনক হারে বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে জেলার ছয় উপজেলায় ৩৮ জনের দেহে করোনা শক্ত হয়েছে। নীলফামারীতে করোনা আক্রান্তের শুরু থেকে এটিই সর্বোচ্চ শনাক্ত।
আজ বৃহস্পতিবার(২৪ জুন/২০২১) দুপুরে সিভিল সার্জন ডাঃ জাহাঙ্গীর কবীর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ২০২০ সালের এপ্রিল মাস থেকে চলতি বছরের ২৪ জুন পর্যন্ত জেলা মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১ হাজার ৭৩৫ জন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৫জন। সুস্থ্য হয়েছে ১হাজার ৫৭৩জন।। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয় ১২ হাজার ৭৪৩।
তিনি আরও জানান গত মে মাসে জেলায় সংক্রমনের হার ছিল ১০.৬৩। জুন মাসের ২১ তারিখ পর্যন্ত সংক্রমনের হার বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছিল ১৭.০১। তিনদিনে শনাক্তের হার বৃদ্ধি পেল ২৩ শতাংশ। যা এ জেলার সর্বোচ্চ শনাক্ত।
সুত্র মতে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে জেলা সদরে ১১জন, ডোমারে ৮ জন, ডিমলায় ৩ জন, জলঢাকায় ২ জন, কিশোরীগঞ্জে ১ জন ও সৈয়দপুরে ১৩ জন। সুস্থ্য হয়েছেন ৫জন। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১১৫ জন। এরমধ্যে সদর হাসপাতালে ১২, সৈয়দপুর উপজেলা হাসপাতালে ১জন ও হোম আইসোলেশনে ১০২ জন। ২৪ ঘন্টায় করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে ১২জনকে।
এদিকে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও জেলায় মানুষ স্বাভাবিকভাবেই চলাফেরা করছে। কোনোভাবেই তাদেরকে নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। বেশিরভাগ মানুষ মাস্ক ছাড়াই চলাফেরা করছে। গ্রামের ছোট ছোট হাট বাজারের চায়ের দোকানে বসানো হয়েছে আড্ডা ও গল্পের আসর।
সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি মানুষকে মাস্কপড়া বাধ্যতামূলক করার চেষ্টা করে যাচ্ছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে জরিমানা করছেন। এদিকে নীলফামারী সচেতনমহল জেলাকে লকডাউন ঘোষণার দাবি তুলেছেন।
জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, জেলা ইউপি চেয়ারম্যান ও জনপ্রতিনিধিদের নিজ নিজ এলাকায় মাস্কপড়া বাধ্যতামূলক করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। জেলার সকল সাধারণ মানুষ আরো বেশি সাবধানতা ও সচেতন হলেই করোনা মোকাবেলায় আমরা সক্ষম হবো।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!