1. admin@theinventbd.com : admin :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
করোনা: ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরও ২২৮, শনাক্ত ১১২৯১ সৈয়দপুরে ৬ মামলা ২০ হাজার জরিমানা ও একজনের জেল অক্সিজেন সেবা নিয়ে করোনা রোগীদের পাশে কিশোরগঞ্জে সিসি ক্যামেরায় গরু চোর শনাক্ত-৪ ঘন্টায় উদ্ধার জলঢাকায় কোরবানির গোস্ত নিয়ে দুস্তদের দুয়ারে দুয়ারে গেলেন ইউএনও মাহবুব হাসান আরও ১৯৫ মৃত্যুতে করোনায় প্রাণহানি ১৯ হাজার ছাড়াল লকডাইন অমান্য করে সৈয়দপুরে পুলিশ কর্মকর্তাকে পেটানোর মামলায় ব্যবসায়ীর দুই পুত্র আটক কিশোরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের স্বপ্নের ঘরে প্রথম ঈদ সৈয়দপুরে বিধিনিষেধ অমান্য করায় ২১মামলা ১ জনের ৭দিনের জেল নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন এক হাজার পরিবার

গোপালগঞ্জে তৈরি হবে করোনার ভ্যাকসিন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক |
  • প্রকাশকাল | শনিবার, ২৬ জুন, ২০২১
  • ৩২ বার পঠিত
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক মানিকগঞ্জের গড়পাড়ায় নিজ বাসভবনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন।

গোপালগঞ্জে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হবে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ভ্যাকসিন তৈরির বিষয়টি আমরা অনেক আগ্রহের সঙ্গে গ্রহণ করেছি। ভ্যাকসিন তৈরির ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীরও আগ্রহ রয়েছে। দেশি-বিদেশি এক্সপার্টদের সাথে আমরা ইতিমধ্যে কয়েকটি সভা করেছি। এক্সপার্টদের প্রজেক্ট প্রোফাইল তৈরির ব্যাপারে বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, গোপালগঞ্জে যে ওষুধ কারখানা আছে অথবা তার পাশেই ভ্যাকসিন তৈরির পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি সভাও হয়েছে।

শনিবার বিকেল সোয় ৩ টার দিকে মানিকগঞ্জের গড়পাড়ায় নিজ বাসভবনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা কভেক্স থেকে ২৫ লাখ মডার্নার ভ্যাকসিন পেয়েছি। এই ভ্যাকসিনগুলো দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, লকডাউনের ওপর নির্ভরশীলতা নয়, লকডাউন দিতে হয় বাধ্য হয়ে। টিকা হাতে না থাকলে লকডাউনই করোনা প্রতিরোধের একমাত্র উপায়। বিশ্বের অনেক দেশই লকডাউন দিয়ে করোনা নিয়ন্ত্রণে রেখেছে। আমরা লকডাউন চাই না। কিন্তু মানুষের জীবন বাঁচাতেই আমাদের এই সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, আপনারা জানেন কয়েক দিন ধরে দেশে মৃত্যুর হার অনেক বেড়ে গেছে। শুক্রবার ১০৮ জন মৃত্যুবরণ করেছে এবং সংক্রমণের হারও প্রায় ২২ শতাংশের কাছে চলে গেছে। দেশের প্রায় প্রত্যেকটি জেলায় করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে রাজশাহী ও খুলনায় করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হচ্ছে। পাশাপাশি বিভাগ, জেলা এবং ঢাকা শহরেও সংক্রমণ বাড়ছে। মৃত্যু হার ও করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সারাদেশে কঠোর লকডাউন দেওয়া হচ্ছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, রাজধানীতে করোনা সংক্রমণের হার প্রায় ১৩ শতাংশ হয়ে গেছে। আমাদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী হাসপাতালে প্রায় ৫ হাজার করোনা রোগী আছে। যখন করোনা নিয়ন্ত্রণে ছিল তখন এর সংখ্যা ছিল এক হাজার। করোনা সংক্রমণ এভাবে বাড়তে থাকলে আমারা হাতপাতালে রোগী জায়গা দিতে পারব না এবং চিকিৎসা দিতে আমাদের হিমশিম খেতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতির সার্বিক তথ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে উপস্থাপন করা হয়েছে। তিনি সোমবার থেকে আগামী সাত দিন লকডাউনের নির্দেশনা দিয়েছেন। সাত দিন পরে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হবে। তারপরে আবার আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!