1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ইএসডিও- ডাভ সেলফ এস্টিম প্রকল্পের অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত তিস্তায় পানি বৃদ্ধি ২২ গ্রাম প্লাবিত হুমকির মুখে তিস্তার তীরবর্তী মানুষ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন জলঢাকায় শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালন করেছে যুবলীগ জলঢাকায় ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নারী উদ্দোক্তা প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত আনন্দের ভাগিদার হতে ছুটে এসেছি জলঢাকায় পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ড. তুরিন আফরোজ জলঢাকায় মঙ্গলদ্বীপের উদ্যোগে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জলঢাকায় প্রতিমাকে দৃষ্টিনন্দন করতে রং তুলির কাজে ব্যস্ত এখন কারিগররা জলঢাকায় অনির্বাণ স্কুলে একাডেমিক ভুবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

নীলফামারীতে মুরগী চুরির অপবাদে শিশুর আত্মহত্যা

জয়নাল আবেদীন হিরো,স্টাফ রিপোর্টার :
  • প্রকাশকাল | রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১
  • ৭৫ বার পঠিত
 নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শিমুলবাড়ি ইউনিয়নের উত্তর বেরুবন্দ গ্রামে রঞ্জন কুমার রায় নামের পঞ্চম শ্রেনীর এক ছাত্র আত্মহত্যা করেছে। শনিবার ২৬ জুন গ্রামের অদুরে বুড়িখোড়া নদীর ধারে একটি গাছে গলায় ফাঁস দিয়ে শিশুটি আত্মহত্যা করে।
স্বজনরা দাবি করেছেন, মুরগী চুরির অপবাদে দিনমজুর বাবা হিরম্ব কুমার রায় ধমক দিয়েছিল। শনিবার সকালে শিশুটি কিছু না খেয়েই রাগ করে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। তার মা মায়া রানী ছেলেকে আটকানোর চেস্টা করেন। সে দৌড়ে পালিয়ে যায়। এরপর সকাল ১০টায় খবর পান রঞ্জন আত্মহত্যা করেছে। শিশুটির মৃত্যুর এ ঘটনা এলাকায় প্রতিক্রিয়া তৈরী করেছে। শিশুটি গ্রামের ব্র্যাক স্কুলের শিক্ষার্থী।
গ্রামবাসী জানায়, রঞ্জনের বাবা হিরম্ব দিনমজুর। কৃষি জমিতে কায়িক শ্রমিকের কাজ করেন। নিজের ঘরবাড়ি নেই। তাই শ্বশুড়ের ভিটেতেই বসবাস করেন। তাদের দুই ছেলে। রঞ্জন দ্বিতীয়। বড় ছেলে চন্দন ইটভাটাতে শ্রমিকের কাজ করে। দুস্থ এই পরিবারটির সন্তান রঞ্জন লেখাপড়া করে মানুষের মতো মানুষ হতে চেয়েছিল। কিন্তু করোনাকালিন স্কুল বন্ধ থাকায় সে গ্রামের করিমের পোল্ট্রি খামারে মুরগীর দেখাশোনা করতো।
গ্রামবাসী আরো জানায়, মুরগীর খামারের মালিকের ছেলে চুপ করে কয়েকটি মুরগী বিক্রি করে। এ জন্য দোষারোপ করা হয় রঞ্জনকে। আর সে জন্য তার বাবা তাকে ধমক দেয়।
এদিকে শিশুটির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারে দুই থানার পুলিশকে হাজির হতে হয়। শিশুটির বাড়ি জলঢাকা থানা এলাকায় হলেও আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটে নীলফামারী সদর থানার সীমানায়। দুই থানার পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত মরদেহ নামিয়ে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন নীলফামারী সদর থানার ওসি আব্দুল রউপ।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!