1. admin@theinventbd.com : admin :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৯:২৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
করোনা: ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরও ২২৮, শনাক্ত ১১২৯১ সৈয়দপুরে ৬ মামলা ২০ হাজার জরিমানা ও একজনের জেল অক্সিজেন সেবা নিয়ে করোনা রোগীদের পাশে কিশোরগঞ্জে সিসি ক্যামেরায় গরু চোর শনাক্ত-৪ ঘন্টায় উদ্ধার জলঢাকায় কোরবানির গোস্ত নিয়ে দুস্তদের দুয়ারে দুয়ারে গেলেন ইউএনও মাহবুব হাসান আরও ১৯৫ মৃত্যুতে করোনায় প্রাণহানি ১৯ হাজার ছাড়াল লকডাইন অমান্য করে সৈয়দপুরে পুলিশ কর্মকর্তাকে পেটানোর মামলায় ব্যবসায়ীর দুই পুত্র আটক কিশোরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের স্বপ্নের ঘরে প্রথম ঈদ সৈয়দপুরে বিধিনিষেধ অমান্য করায় ২১মামলা ১ জনের ৭দিনের জেল নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন এক হাজার পরিবার

কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে ২যুগ ধরে অপারেশন থিয়েটার বন্ধ,দূভোগে উপজেলাবাসী

জয়নাল আবেদীন হিরো,স্টাফ রিপোর্টার :
  • প্রকাশকাল | বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ৫২ বার পঠিত

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ৫০ শয্যার একমাত্র হাসপাতালটিতে সরকারের কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে উন্নতমানের আল্ট্রাসনোগ্রাম,এক্সরে মেশিন এবং অপারেশন থিয়েটারে অ্যানেস্থিসিয়া মেশিনসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হলেও দক্ষ জনবল এবং টেকনিশিয়ানের অভাবে কাঙ্খিত সেবা মিলছে না হাসপাতালটিতে।এতে দূর্ভোগে পরেছে উপজেলার অসহায় দরীদ্র মানুষগুলো। আর অন্ধকারে বছরের পর বছর এসব মূল্যবান সরঞ্জামাদি ব্যবহার না করায় অযত্নে অবহেলায়,ধুলোবালি,মরিচায় প্যাকেট বন্দি হয়ে নষ্ঠ হতে বসেছে।১৯৮২ সালে নির্মিত ৩১ শয্যার হাসপাতালটি ২০১৩ সালে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়। ৫০ শয্যার হাসপাতালে নতুন করে পোস্ট অপারেটিভ রুমসহ ৫টি আধুনিক রুম তৈরি করে অপারেশন চালু করার লক্ষ্যে একটি অ্যানেস্থিসিয়া মেশিনসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হয়। হাসপাতালটি চালুর প্রথম দিকে প্রসূতিদের জন্য অপারেশন থিয়েটার(ওটি) নিয়মিত চালু থাকার কিছুদিন পর অ্যানেস্থিসিয়া,গাইনী ও সার্জারি কনসালট্যান্ট পদ শূন্য থাকায় ওটি বন্ধ হয়ে যায়। ফলে সিজারিয়ান অপারেশন দীর্ঘ ২ যুগ বন্ধ থাকায় গর্ভবতী মায়ের প্রসবকালীন জরুরী ও জটিল সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। নতুন এক্সরে মেশিন সরবরাহ করা হলেও এটি চালু করা হয়নি টেকনিশিয়ানের অভাবে। এছাড়াও সনোজোলজিস্টের অভাবে আল্ট্রাসনোগ্রাম মেশিনটিও কাজে আসছে না। বর্তমানে ৫০শয্যার হাসপাতালটিতে পূর্বের ৩১শয্যারও জনবল নেই। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আবু শফি মাহমুদ(ভারপ্রাপ্ত) জানান, যন্ত্রপাতি থাকলেও দক্ষ জনবলের অভাবে অপারেশন থিয়েটার চালু করতে পারছি না। বিশেষজ্ঞ সার্জন নেই বর্তমানে ১জন গাইনি কনসালট্যান্ট,১জন অ্যানেস্থিসিয়া ডাক্তারের পদায়ন থাকলেও অ্যানেস্থিসিয়া ডাক্তার ডেপুটিশনে জেলায় দায়িত্ব পালন করছেন। তবে দক্ষ জনবলসহ অপারেশন থিয়েটার চালু করার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।এ ব্যাপারে জেলা সিভিল সার্জন জাহাঙ্গীর কবির জানান,এ বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হলে অতি শীঘ্রই অ্যানেস্থিসিয়া,গাইনী ও সার্জারী কনসালট্যান্ট দিবে বলে কথা দিয়েছে। অ্যানেস্থিসিয়া,গাইনী ও সার্জারী কনসালট্যান্ট পেলে অপারেশন থিয়েটার চালু করা হবে। এক্সরে মেশিন ও আল্ট্রাসনোগ্রাম চালুর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান,বিভাগীয় পরিচালককে জানানো হয়েছে। তিনি অতি তাড়াতাড়ি টেকনিশিয়ান ও সনোজোলিস্ট পোস্টিং দিয়ে এক্সরে মেশিন ও আল্ট্রাসনোগ্রাম চালুর ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!