1. admin@theinventbd.com : admin :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০:০৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
করোনা: ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরও ২২৮, শনাক্ত ১১২৯১ সৈয়দপুরে ৬ মামলা ২০ হাজার জরিমানা ও একজনের জেল অক্সিজেন সেবা নিয়ে করোনা রোগীদের পাশে কিশোরগঞ্জে সিসি ক্যামেরায় গরু চোর শনাক্ত-৪ ঘন্টায় উদ্ধার জলঢাকায় কোরবানির গোস্ত নিয়ে দুস্তদের দুয়ারে দুয়ারে গেলেন ইউএনও মাহবুব হাসান আরও ১৯৫ মৃত্যুতে করোনায় প্রাণহানি ১৯ হাজার ছাড়াল লকডাইন অমান্য করে সৈয়দপুরে পুলিশ কর্মকর্তাকে পেটানোর মামলায় ব্যবসায়ীর দুই পুত্র আটক কিশোরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের স্বপ্নের ঘরে প্রথম ঈদ সৈয়দপুরে বিধিনিষেধ অমান্য করায় ২১মামলা ১ জনের ৭দিনের জেল নীলফামারীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন এক হাজার পরিবার

লকডাউনের তৃতীয় দিনে কঠোর অবস্থানে রংপুরের প্রশাসন

অনলাইন ডেস্ক |
  • প্রকাশকাল | শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ২৯ বার পঠিত

সারাদেশে করোনার বিস্তার রোধে চলমান সাত দিনের লকডাউন ও কঠোর বিধিনিষেধের তৃতীয় দিনে রংপুরে বৃষ্টির মধ্যেই আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বেশ তৎপর দেখা গিয়েছে। তবে এদিন প্রথম দিনের তুলনায় নগরীর সড়কে বেশি মানুষ দেখা গেছে, পাড়া-মহল্লার মোড়েও জটলা দেখা যায়।

শনিবার রংপুর মহানগরসহ জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে মাঠে সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যদের টহল অব্যাহত দেখা গেছে। বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে যারা বেড়িয়েছেন তাদের ঘরে ফেরানোসহ অহেতুক ঘোরাঘুরি বন্ধ ও স্বাস্থ্যবিধি মানতে পরিচালনা করা হচ্ছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সকাল থেকে নগরীতে থেমে থেমে বৃষ্টি হলেও বৃষ্টি উপেক্ষা করে অনেক মানুষ বাইরে বের হয়েছেন। প্রশাসনের মুখোমুখি হলে তাদের ছিল নানা অজুহাত। কারণে-অকারণে বের হওয়া এসব মানুষদের বেশির ভাগই বিধিনিষেধ মানছেন না। গত দুই দিনের মতো তৃতীয় দিনেও রংপুর নগরের গুরুত্বপূর্ণ ২০টি পয়েন্টে পুলিশের চেকপোস্টে তল্লাশি অব্যাহত রয়েছে। অহেতুক বের হওয়া লোকজনকে আটক করে জেরা করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নগরীর পায়রা চত্বর, জিলা স্কুল মোড়, সিটি বাজার, জাহাজ কোম্পানি, শাপলা চত্বরসহ বেশ কিছু এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, যারা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। বিশেষ করে বৃষ্টিতে ভিজে র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক রেজা আহমেদ ফেরদৌস, মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ফারুক আহমেদ, কোতোয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রায়হানুল ইসলাম, মাহমুদ হাসান মৃধা, সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরুজুল ইসলামসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। রাস্তায় বের হওয়া লোকজনদের কাজ শেষে দ্রুত বাড়ি ফিরতে বলছেন তারা। পাশাপাশি যারা স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে চলাফেরা করছেন, তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

রংপুর সিটি করপোরেশন ও জেলা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে রংপুর মহানগর ছাড়াও জেলার প্রতিটি উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে শতাধিক মামলা করা হয়েছে। নিয়মিত চেকপোস্টের বাইরে পাড়া-মহল্লায় জটলা করে আড্ডা ও ঘোরাঘুরি বন্ধে মাইকিং করে সতর্ক করছে মেট্রোপলিটন পুলিশ ।

 

গত দুদিনের তুলনায় শনিবার সকাল থেকেই সড়কে পণ্যবাহী ট্রাক, পিকআপ ভ্যানসহ হালকা যানবাহন চলাচল বেড়েছে। বিভিন্ন সড়কে হাঁড়িভাঙা আম ফেরি করে বিক্রি করতে আসা আম চাষি ও ব্যবসায়ীদের উপস্থিতিও ছিল লক্ষ্য করার মতো। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে টহলের পাশাপাশি বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে। তবে জরিমানার চেয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি ও করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে মানুষজনকে উদ্বুদ্ধ করছে প্রশাসন।

দুপুরে বঙ্গবন্ধু চত্বরে অভিযান পরিচালনা করে মাস্ক পরিধান না করা, অহেতুক বাইরে বের হওয়া, ভুয়া পরিচয়পত্র ব্যবহারকারী বিভিন্ন বয়সী ১৫ জনকে আটক করে র‌্যাব-১৩ এর টহল টিম। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মামলা দিয়ে জরিমানা আদায় ও বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

নগরীর মেডিকেল মোড়, ডিসির মোড়, কাচারি বাজার, টাউন হল চত্বর, সুপার মার্কেট মোড়, প্রেসক্লাব মোড়, গ্র্যান্ড হোটেল মোড়, লালবাগ, বিশ্ববিদ্যালয় মোড়, মডার্ন অর্জন মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের চেকপোস্ট দেখা গেছে। এসব স্থানে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা বিধিনিষেধের আওতার বাইরে থাকা যানবাহন চলাচলে বাধা দিচ্ছেন। বিশেষ করে কাগজপত্র ছাড়া বের হওয়া মোটরসাইকেল, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, সিএনজি ও অটোরিকশার চালকদের জরিমানাও করা হচ্ছে।

রংপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, রংপুরের আট উপজেলায় আটটি এবং সিটি করপোরেশন এলাকায় সেনাবাহিনীর একটি টহল টিম কাজ করছে। এছাড়াও পুলিশ, র‌্যাব, আনসারের পক্ষ থেকে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে মাইকিংসহ টহল অব্যাহত রয়েছে। মাঠে রয়েছে দুই প্লাটুন বিজিবি। গত দুই দিনে জেলায় প্রায় ৭০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। মামলা হয়েছে দেড় শতাধিকের মতো।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!