1. admin@theinventbd.com : admin :
  2. worksofine@rambler.ru : JefferyDof :
  3. kevin-caraballo@mainello5.tastyarabicacoffee.com : kevincaraballo :
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ
জলঢাকায় ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার- ২ পলাতক-১’জন মোটরসাইকেল জব্দ সৈয়দপুরে জীবিত স্বামীকে মৃত দেখিয়ে ১৭ বছর থেকে বিধবা ভাতা উত্তোলন, সমাজসেবা কর্তৃপক্ষ নির্বিকার ঝিকরগাছায় আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্পের অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত জলঢাকায় ১১ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশের মাঝে ১০৯টি বাইসাইকেল বিতরণ জলঢাকায় যানজটে জনদুর্ভোগ বেড়েই চলছে : নিরসনের দাবি পৌরবাসির বেনাপোলে গৃহহীনদের ঘর নিয়ে ভুমি অফিসের সহকারীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ। ঝিকরগাছায় সাপের কামড়ে ১ গৃহবধূর মৃত্যু বেনাপোলে র‍্যাবের অভিযানে গাজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক সৈয়দপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বাইসাইকেল বিতরণ সৈয়দপুরে সাহিত্য আসরের ৪থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

রংপুরে দ্বি-গুন হয়েছে মাস্কের দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশকাল | বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ৭৬ বার পঠিত

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুত বেড়ে যাওয়ায় সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে আবারো লকডাউন ঘোষণার দিয়েছে সরকার। আর ‘লকডাউনের’ ঘোষণার পর আচমকাই বেড়ে গেছে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারের চাহিদা ও দাম।

গত মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকালে নগরীর জাহাজ কোম্পানি,পায়রা চত্ত্বর,কাচারি বাজার, ধাপ, মেডিকেল মোড়, চেক পোস্ট এলাকা ঘুরে দেখা যায়,মাত্র কয়েকদিনের তুলনায় আবার বেড়ে গেছে মাস্কের চাহিদা।দাম ও বেড়ে হয়েছে দ্বি-গুন।এছাড়াও দাম বেড়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার।তবে আগের দামে রয়েছে গ্লোভস্ ও জীবানুনাশক স্প্রের।

জাহাজ কোম্পানি মোড়ে ফুটপাতে মাস্ক বিক্রেতা আবির মিয়া বলেন,ফেইস মাস্কের বাক্স ১৪০ টাকায় কিনতাম, সেটা সরকার লকডাউন দেয়ার পর ২২০ টাকায় কিনেছি।ফলে আগে চার পিস ১০ টাকায় বিক্রি করতাম,এখন দুই পিস ১০ টাকায় বিক্রি করছি।

টার্মিনাল এলাকায় ফার্মেসির বিক্রেতা নুর আলম বলেন, মাস্ক ও স্যানিটাইজার পর্যাপ্ত আছে। আমরা বেশি দামে কিনছি, তাই বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, লকডাউন ঘোষণার পরই পাইকারি বাজারে মাস্কের দাম বেড়ে গেছে। তাই বাড়তি দাম দিয়ে বাধ্য হয়েই কিনতে হচ্ছে।

মাস্ক কিনতে আসা লিমন মিয়া বলেন,সরকার লকডাউন ঘোষণা করলেও জীবিকার তাগিদে বাসার বাইরে বের হতে হচ্ছে।আর তাই কিছুটা ঝুঁকি এভাতে প্রতিদিন মাস্ক পড়ে বের হতে হয়।তিনি আরও বলেন,এক বক্স করে মাস্ক কিনে নিয়ে যাই মাঝের মধ্যে।কিন্তু দ্বিতীয় ধাপের লকডাউন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ সেই মাস্কের বক্স কিনতে দ্বিগুন দাম দিতে হচ্ছে।

রংপুর ভোক্তা আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা বেলাল আহম্মেদ বলেন, লকডাউনে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট তৈরী করে বাড়তি মুনাফার চেষ্টা করে। তাই মাস্কসহ এধরণের পণ্যের বাজার পরিস্থিতি সরকারের নিয়ন্ত্রণেও রাখা জরুরী বলে বলেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!