1. admin@theinventbd.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ
সৈয়দপুরে ৮ বছরের শিশুকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে একমাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগ।। হাতেনাতে সৎ নানা আটক কিশোরগঞ্জে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির ভাতাভোগীদের ৯ মাসের টাকা বেহাত কিশোরগঞ্জে ১টি পরিবারকে ৫ দিন ধরে অবরুদ্ধ রাখার অভিযোগ সৈয়দপুরে চালককে ছুরিকাঘাত করে ভ্যান ছিনতাই নীলফামারীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী দুই শিক্ষার্থী পেল পোর্টেবল ভিডিও ম্যাগনিফায়ার জলঢাকায় ববিতা রানী সরকারের প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরন আমজাদ সরকার সভাপতি ও খায়রুল সম্পাদক জলঢাকায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর কমিটি গঠন জলঢাকায় হরিজন সম্প্রদায়ের অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই করবেন ব্যারিস্টার তুরিন মিথ্যা প্রতিবেদন প্রকাশের প্রতিবাদে সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন সৈয়দপুরে গোয়াল ঘরের তালা কেটে গাভী চুরি

মিয়ানমারে ‘জাতীয় ঐক্যের’ সরকার

অনলাইন ডেস্ক |
  • প্রকাশকাল | শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৪ বার পঠিত
মিয়ানমারের ক্ষমতা দখলকারী সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ‘জাতীয় ঐক্য সরকার’ গঠন করা হয়েছে। ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক সরকারপ্রধান অং সান সু চির সহযোগীদের সমন্বয়ে কমিটি রিপ্রেজেন্টিং ফাইদংসু হ্লাত্তাও (সিআরপিএইচ) নামের একটি কমিটি গতকাল শুক্রবার সরকার গঠনের এই ঘোষণা দেয়। অভ্যুত্থানে উৎখাত হওয়া পার্লামেন্ট সদস্য, অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভের নেতা এবং জাতিগত সংখ্যালঘু নেতাদের নিয়ে এ সরকার গঠন করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানাচ্ছে, নতুন এই সরকারের ঘোষণা এমন দিনে এলো যেদিন দেশজুড়ে ‘নীরব ধর্মঘট’ পালন করেন সেনাশাসন বিরোধীরা। শুক্রবারের এ ধর্মঘটে বাড়িতে থেকেই জান্তাবিরোধী আন্দোলনে নিহত ৭০০’র বেশি মানুষকে স্মরণ করতে এবং ঘর থেকে বের হলে কালো কাপড় পরতে বলা হয়। এ ছাড়া সেনাবাহিনীকে ক্ষমতাচ্যুত করে দেশে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যের কথাও পুনর্ব্যক্ত করা হয়।

ওইদিন ইয়াঙ্গুনসহ বেশ কয়েকটি শহরে যখন ‘নীরব ধর্মঘট’ চলছিল তখনই এক ফাঁকে ১০ মিনিটের একটি ভিডিও বার্তায় গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনের নেতা মিন কো নাইং ‘জাতীয় ঐক্য সরকার’ গঠনের ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, ‘দয়া করে জনগণের সরকারকে স্বাগত জানান। ‘জাতীয় ঐক্য সরকার’ ব্যবস্থায় জনগণের ইচ্ছাকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হবে।  আমরা সেনাবাহিনীকে সমূলে উৎপাটনের চেষ্টা করছি। এজন্য আমাদের অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হবে।’

ওই সরকারের আন্তর্জাতিক সহযোগিতাবিষয়ক মন্ত্রী ডা. সাসা বলেন, ‘গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচনের মাধ্যমে মিয়ানমারের জনগণ আমাদের নেতা নির্বাচিত করেছেন। তাই যদি স্বাধীন এবং গণতান্ত্রিক বিশ্ব আমাদের অস্বীকার করে তবে তারা গণতন্ত্রকেই অস্বীকার করবে।’

নুতন সরকারের মন্ত্রিসভার একটি তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। ওই তালিকায় গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলন ও স্বায়ত্তশাসনকামী সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রতিবাদী নেতারা আছেন। সংখ্যালঘু নেতাদের কয়েকজন স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে কয়েক দশক ধরে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে লড়াই করছেন। ঐক্য সরকারের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য হলো আন্তর্জাতিক সমর্থন ও স্বীকৃতি অর্জন।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে মিয়ানমারে সহিংসতা চলছে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে মানুষ প্রতিদিনই রাস্তায় নামছেন। সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এখন পর্যন্ত ৭০০’র বেশি বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

এই বিভাগের আরও খবর
Copyright © The Invent
error: Content is protected !!